যশোরে ব্যবসায়ীকে মারপিটের ঘটনায় ৪ জনের নামে মামলা

২৮

নিজস্ব প্রতিবেদক

পুলিশে অভিযোগ দেয়ায় যশোরের রামনগর পূর্বপান্তাপাড়ায় সাদেক বিশ্বাস (৪৮) নামে এক ব্যবসায়ীর বাড়ি ঢুকে মারপিটে জখম করা হয়েছে। এই অভিযোগে চার জনের বিরুদ্ধে কোতয়ালি থানায় ১৭ জুন বৃহস্পতিবার একটি মামলা হয়েছে।

আসামিরা হলো, সদর উপজেলার ভগবতীপুর গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে লাভলু (৩২), আব্দুল হামিদের ছেলে আসাদ বিশ্বাস (২৮) এবং আবু বক্কার সিদ্দিকের দুই ছেলে আল-আমিন (২৪) ও আলাউদ্দীন (২২)।

সদর উপজেলার পূর্ব পান্থাপাড়া গ্রামের মৃত জয়নাল বিশ^াসের ছেলে সাদেক বিশ^াস বৃহস্পতিবার ১৭ জুন বিকেলে কোতয়ালি থানায় উক্ত আসামিদের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন। মামলায় তিনি বলেন, গত ৫ জুন দিবাগত গভীর রাতে পৌনে ২টায় আসামিরা টাকা-পয়সা লেনদেন সংক্রান্ত বিষয়কে কেন্দ্র করে সাদেক বিশ^াসকে এলোপাতাড়ি মারপিট করে। বিষয়টি এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে জানালে তারা কোন প্রতিকার না করায় তিনি কোতয়ালি থানায় অভিযোগ করেন। থানায় অভিযোগ করার খবর পেয়ে আসামিরা গত ১৪ জুন সকালে বাদির বাড়ির উঠানে হাতে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে প্রবেশ করে গালিগালাজ শুরু করে। সাদেক বিশ^াস গালিগালাজের প্রতিবাদ করে। এতে লাভলু এর হুকুমে তার সহযোগী আসামিরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে সাদেক বিশ^াসকে জখম করে। এসময় সাদেক বিশ^াসের পকেটে থাকা ইজিবাইকের ব্যাটারী ক্রয় করার নগদ ৫২ হাজার টাকা জোরপূর্বক কেড়ে নেয়। সন্ত্রাসীদের হামলায় সাদেক বিশ^াসের চিৎকারে তার ভাই আব্দুল কাদের (৫৯), তার স্ত্রী আলেয়া বেগম (৫৫), সাদেক বিশ^াসের স্ত্রী রাশিদা (৪২) ও মেয়ে খাদিজা খাতুন (২০) ঠেকাতে গেলে সন্ত্রাসীরা তাদেরকে মারপিট করে। সাদেক বিশ^াসসহ তার পরিবারের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা চলে যাওয়ার সময় সাদেক বিশ^াসের পরিবারকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন সাদেক বিশ^াসসহ তার পরিবারের সদস্যদের আহত অবস্থায় উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে।

মন্তব্য
Loading...