যশোরে হু হু করে বাড়ছে করোনা শনাক্ত : আতঙ্ক

0 ২৮

জিল্লুর রহমান গালিব

যশোরসহ দেশজুড়ে করোনা বাড়তেই আছে। গত তিন দিনে জেলায় শনাক্তের সংখ্যা ১০০ এর উপরে। গত তিনদিনে শনাক্তের সংখ্যা গড়ে ৩৫ জন। এতে করে আতঙ্ক পিছু ছাড়ছে না জনসাধারণের। করোনার এই ভয়াবহতা নিয়ে একেক জন একেক মন্তব্য করছেন।

সিভিল সার্জন অফিসের তথ্য অনুযায়ী, রোববার জেলায় ৩৬৬ জনের নমুনার ফলাফলে ১০৫ জনের শরীরে করোনার অস্তিত্ব পাওয়া যায়। যার শতকরা শনাক্ত ৩০। সেমবার ৩১৩ নমুনায় শনাক্তের সংখ্যা ১০৪ জন। যার শতকরা শনাক্ত ৩৩। মঙ্গলবার ২৯৯ জনের নমুনার ফলাফলে শনাক্ত সংখ্যা ১২২ জন। যার শতকরা শনাক্ত ৪১।

এসএ শাহীনুর রহমান নামের এক স্কুল শিক্ষক বলেন, বর্তমান পরিস্থিতি সাধারণ মানুষের জন্য অবশ্য ভালো কিছুর ইঙ্গিত দেয় না। এভাবে চলতে থাকলে আমাদের আরো ভয়ঙ্কর দিন পার করতে হবে। তাই আমাদের অনিচ্ছা সত্ত্বেও ঘরেই থাকতে হবে। মানতে হবে স্বাস্থ্যবিধি, সচেতনতা আবশ্যক। এমন অবস্থায় বাইরে বের হওয়া থেকে বিরত থকোতে হবে। বাইরে গেলে সরকারের বিধিনিষেধ মেনে চলতে হবে। তাছাড়া করোনা থেকে পরিত্রাণের কোনো উপায় নেই।

শহরের এক ব্যবসায়ী আরমান হোসেন বলেন, যশোরে করোনার ভয়াবহ অবস্থা সত্য। তবে প্রশাসন যেসকল বিধিনিষেধ আরোপ করছে এতে করে আমাদের মতো ব্যবসায়ীদের পড়তে হচ্ছে বিপাকে। আমাদের দিনের ইনকাম দিনে একদিন কাজ না হলে উপার্জন বন্ধ থাকে। যার ফলে আমাদের সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হয়। এমনিতেই এই পরিস্থিতিতে ব্যবসা আগের মতো তেমন নেই। একেবারে বন্ধ হলে আমাদের অবস্থা আরো খারাপের দিকে চলে যাবে।

সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন বলেন, জেলায় প্রতিনিয়ত করোনার শনাক্ত সংখ্যা শতাধিক দেখা যাচ্ছে। এমতাবস্থায় জনসাধারণের জন্য প্রধান করণীয় কাজ সচেতনতা। মানুষ সচেতন হলে আমরা করোনা মোকাবিলা করতে সক্ষম হতে পারবো বলে মনে করি। তাছাড়া সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। জনসমাগম এড়িয়ে চলতে হবে। প্রয়োজনে বাইরে গেলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বের হতে হবে। মসজিদে, দোকানে বা অন্য কোনো কাজে বাইরে গেলে অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে ও মুখে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। তা না হলে আমাদের করোনার এই ভয়াবহতা থেকে রক্ষা পেতে কষ্টকর হবে। তাই অবশ্যই মানুষকে সচেতন হতে হবে।

সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা. রেহেনেওয়াজ রনি জানান, করোনার এই ভয়াবহতা থেকে রক্ষা পেতে হলে অবশ্যই সচেতনতা অবলম্বন করতে হবে। করোনা থেকে রক্ষা পেতে সচেতনতা ছাড়া অন্য কোনো উপায় নেই। সচেতনতাই করোনা থেকে রক্ষার একমাত্র উপায়। মঙ্গলবার আমাদের কাছে আসা ফলাফল অনুযায়ী একদিনে ১২২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। যশোরে পিসিআর ল্যাব থেকে দেওয়া ফলাফলে ২২৫ জনের নমুনায় ১০৫টি পজিটিভ। এর মধ্যে যবিপ্রবি ল্যাবে ২১৫ নমুনায় ৮৫ জন ও খুলনা ল্যাবে দশ নমুনায় দুইজন পজিটিভ। এছাড়া এদিনে যশোর জেনারেল হাসপাতালে র‌্যাপিড এন্টিজেন পরীক্ষায় ৭৪ জনের নমুনায় ৩৫ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে।

মন্তব্য
Loading...