যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র : করোনা উপসর্গে বন্দির মৃত্যু

0 ৬৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের বন্দি রকি সরেণ (১৭) ‘করোনা উপসর্গে’ মারা গেছে। রোববার দুপুরে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। হত্যা মামলায় চার বছর আগে রাজশাহীর আদালতের মাধ্যমে তাকে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে আনা হয়। রকি রাজশাহীর তানোর উপজেলার সুলতান সরেণের ছেলে। ময়নাতদন্ত ছাড়াই পরিবারের সদস্যদের কাছে রোববার সন্ধ্যায় তার লাশ হস্তান্তর করা হয়।

শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘অসুস্থতাজনিত কারণে রকির মুত্যু হয়েছে। আমরা লাশের ময়নাতদন্ত করাতে চেয়েছিলাম। কিন্তু তার পরিবারের স্বজনরা রাজি হয়নি। যে কারণে ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ পরিবারের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসকরা কোভিড-১৯ আক্রান্ত বলে সন্দেহ করে। এরপর উন্নত চিকিৎসার জন্যে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতলে পাঠানো হয়।’

এর আগে শনিবার রকিকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। করোনাভাইরাসের উপসর্গ থাকায় শনিবার মধ্যরাতে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার দুপুরে তার মৃত্যু হয় বলে জানায় শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ। হাসপাতালে ভর্তির আগে রকি সরেণ পেটের অসুখে ভুগছিল বলে জানা গেছে।

সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহিন জানান, খুলনা থেকে আমাদের কাছে করোনা পজিটিভ কোন রিপোর্ট আসেনি।

মন্তব্য
Loading...