রক্তঝরা সংগ্রামের পহেলা মে আজ

0 ২৬

এইচ আর তুহিন

আজ মহান মে দিবস। এই দিনে শ্রমজীবী, দিনমজুর মানুষ ন্যায্য শ্রমমূল্য আর ৮ ঘণ্টা কাজের সময় দাবিতে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরের রাজপথে বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিয়েছিলেন। আদায় করে নিয়েছিলেন শ্রমিকের অধিকার।

বিশ্বের শ্রমজীবী মানুষের সঙ্গে আন্তর্জাতিক সংহতি প্রকাশের দিন আজ। মাঠে-ঘাটে, কলকারখানায় খেটে খাওয়া সব শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ে রক্তঝরা সংগ্রামের গৌরবময় ইতিহাস সৃষ্টির দিন পহেলা মে।
দিবসটি উপলক্ষে যশোরে শ্রমিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। কিন্তু বিশ^ মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে গত বছরের ন্যায় এবারও বন্ধ রয়েছে। তবে যশোর জেলা পরিবহন সংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আজিজুল ইসলাম মিন্টু ও সাধারণ সম্পাদক সেলিম রেজা মিঠু এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সদস্যদের মহান মে দিবসে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। একই সাথে তারা মৃত্যুবরণকারী শ্রমিকদের আত্মার শান্তি কামনা করেছেন।

আজ থেকে বহু বছর আগে ১৮৮৬ সালের পহেলা মে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরের হে মার্কেটে শ্রমের উপযুক্ত মূল্য এবং দৈনিক ৮ ঘণ্টা কাজের দাবিতে ধর্মঘট আহ্বান করেন শ্রমিকরা। এতে প্রায় ৩ লাখ মেহনতি মানুষ অংশ নেন। একপর্যায়ে আন্দোলনরত ক্ষুব্ধ শ্রমিকদের রুখতে মিছিলে পুলিশ এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ করে। হে মার্কেটের সামনেই পুলিশের গুলিতে প্রাণ হারান ১০ জন শ্রমিক। আন্দোলনে অংশ নেয়ার অপরাধে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদ- দেয়া হয় গ্রেপ্তারকৃত আরো ৬ শ্রমিককে। কারাগারের বন্দিদশায় এক শ্রমিক নেতা আত্মহননও করেন।

শ্রমিকদের এই আত্মত্যাগ ও রক্তস্নাত ঘটনার মধ্যদিয়ে দৈনিক কাজের সময় ৮ ঘণ্টা প্রতিষ্ঠার সংগ্রামের ঐতিহাসিক বিজয় হয়। শ্রমিকদের আত্মত্যাগের বিনিময়েই সেদিন মালিকরা স্বীকার করে নিয়েছিলেন শ্রমিকরাও মানুষ। তারা যন্ত্র নয়, তাদেরও বিশ্রাম ও বিনোদনের প্রয়োজন রয়েছে।

১৯৮৯ সালে প্যারিসে দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক শ্রমিক সম্মেলনে শিকাগো ট্রাজেডির পরিপ্রেক্ষিতে ওই দিবসটিকে ‘মে দিবস’ হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত হয়। সেই থেকে বিশ্বব্যাপী দিনটি মহান মে দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে। কিন্তু এবার মহামারি করোনার কারণে বিশ্বের
অধিকাংশ দেশেই আজ পালিত হচ্ছে না মহান মে দিবস।

মন্তব্য
Loading...