করোনা প্রতিরোধে সাতক্ষীরার সীমান্তজুড়ে নিরাপত্তা জোরদার

0 ২০

সাতক্ষীরা অফিস

করোনা প্রতিরোধে সাতক্ষীরার ২৩৮ কিলোমিটার সীমান্তজুড়ে বিজিবি ও পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। কেউ যাতে সাতক্ষীরার কোন সীমান্ত দিয়ে ভারতে যাতায়াত না করতে পারেন, সে জন্য সীমান্ত কঠোর নজরদারিতে রাখা হয়েছে। পাশাপাশি সীমান্তজুড়ে রয়েছে গোয়েন্দা নজরদারি।

সাতক্ষীরা ৩৩ বিজিবি’র ব্যাটেলিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আল মাহমুদ জানান, সীমান্তে বিজিবি’র পেট্রোলিং ইতিমধ্যে বাড়ানো হয়েছে। বাড়ানো হয়েছে লোকবল। অবৈধ যাতায়াত বন্ধে শূন্য সহিষ্ণুতা নীতি গ্রহণ করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে ইতিমধ্যে সীমান্তের মসজিদে মসজিদে মাইকিং করে করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতা বাড়ানো হচ্ছে। একইসাথে কেউ যাতে অবৈধভাবে সীমান্ত পারাপার না করেন সেটিও মাইকিং করে জানানো হচ্ছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে সীমান্তের একাধিক ব্যক্তি জানান, সাতক্ষীরা সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে প্রচুর লোকজন যাতায়াত করেন। বিশেষ করে যারা কাজের জন্য ভারতে যান, তাদের অধিকাংশ অবৈধভাবে যান। সাতক্ষীরা সীমান্তে কমপক্ষে ১৭টি চোরাই ঘাট রয়েছে। রয়েছে কথিত ঘাট মালিক। জনপ্রতি ৭ হাজার টাকা থেকে ১০ হাজার টাকায় তাদেরকে অবৈধ পথে কলকাতায় পৌঁছে দেয়া হয়।

এদিকে, মহামারি করোনা ঠেকাতে সাতক্ষীরা ভোমরা স্থলবন্দরে মঙ্গলবার সকাল থেকে ভারত থেকে আসা পণ্যবাহী ট্রাকের ড্রাইভার ও হেলপারদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে থাইরাল স্ক্যানের মাধ্যমে চেক করে বাংলাদেশে প্রবেশ করানো হচ্ছে। একইসাথে পণ্যবাহী ট্রাকগুলোও জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে।

ভোমরা স্থলবন্দর সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশসেনর সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মঙ্গলবার সকাল থেকে বন্দর সংশ্লিষ্ট প্রত্যেকেরই স্বাস্থবিধি মেনে বন্দরের সকল কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে।

মন্তব্য
Loading...