খাদ্য নিরাপত্তা ও চিকিৎসা নিশ্চিতের দাবি বাম জোটের

২৯ এপ্রিল সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি

0 ২৯

নিজস্ব প্রতিবেদক

যশোর জেনারেল হাসপাতালে পূর্ণাঙ্গ আইসিইউ চালু, ইউনিয়ন পর্যায়ে বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষার জন্য স্যাম্পল সংগ্রহ, সব গরীব মানুষকে বিনামূল্যে খাদ্য সরবরাহের দাবি জানিয়েছে বামগণতান্ত্রিক জোট। শনিবার বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির (মাকর্সবাদী) যশোর জেলা কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এই দাবি জানানো হয়।
দাবি বাস্তবায়নে আগামী ২৯ এপ্রিল প্রেসক্লাব যশোরের সামনে মানববন্ধনের ঘোষণা দেয়া হয় সংবাদ সম্মেলন থেকে। ওই দিন বাম গণতান্ত্রিক জোটের চিকিৎসা ও খাদ্য নিরাপত্তার দাবিতে সারাদেশে একযোগে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে বাম গণতান্ত্রিক জোটের নেতারা বলেন, সরকার লকডাউন ঘোষণা করেছে কিন্তু খাদ্য নিরাপত্তার দায়িত্ব নেয়নি। ফলে শ্রমজীবী মানুষ আরো বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে।

সংবাদ সম্মেলন থেকে বলা হয়, ছোট মুদি দোকানিদের দোকান বন্ধ, রিকশাচালকদের রিকশা উল্টে ফেলে দেয়া হচ্ছে, গণপরিবহন বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। অপরদিকে, বড়লোকের যাতায়াতে তাদের প্রাইভেটবাহনসহ বিমান চলাচল উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে।

লিখিত বক্তব্যে বাম গণতান্ত্রিক জোট যশোরের সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট আবুল হোসেন বলেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হলে সরকার লকডাউন ঘোষণা করে। আমরা তখন স্বাগত জানিয়ে বলেছিলাম-সাধারণ মানুষের খাদ্য ও চিকিৎসা নিরাপত্তা জরুরি ভিত্তিতে নিশ্চিত করতে হবে। তা না করতে পারলে এই লকডাউন কার্যকর হবে না। দীর্ঘ এক বছর ধরে আমরা যশোর জেনারেল হাসপাতালে পূর্ণাঙ্গ আইসিইউ চালুর দাবিতে আন্দোলন করছি। নানা গড়িমসির মধ্যে সম্প্রতি তিনটি বেড প্রস্তুত করা হয়েছে, তাও ব্যক্তি উদ্যোগে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আমরা বলেছি- সাধারণ গরিব ও শ্রমজীবী মানুষকে এক মাসের আহার ও নগদ পাঁচ হাজার করে টাকা দিয়ে লকডাউন কার্যকর করা হোক। সেই বিষয়ে কোনও পদক্ষেপ না নিলেও জানতে পেরেছি সরকার দেশের অন্যতম ধনী এস আলম গ্রুপের তিন হাজার ১৭০ কোটি টাকার কর মওকুফ করেছে।
সাংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশর ওয়ার্কার্স পার্টির (মার্কসবাদী) জেলা সভাপতি নাজিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান ভিটু, বাসদ (মার্কসবাদী) যশোরের সমন্বয়ক হাচিনুর রহমান, ইউনাইডেট কমিউনিস্ট লিগের পলাশ বিশ্বাস প্রমুখ।

মন্তব্য
Loading...