সূর্যমুখি চাষে জীবননগরে লাভবান চাষিরা

0 ২৮

রমজান আলী, জীবননগর

চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার চাষিরা সূর্যমুখি চাষের দিকে ঝুঁকছেন। কম খরচে বেশি লাভ হওয়ায় দিন দিন বেড়েই চলেছে সূর্যমুখির আবাদ। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এ বছর ফলনও ভাল হয়েছে। তবে স্থানীয়ভাবে ব্যাপক বাজার সৃষ্টি না হওয়ায় দাম একটু কম পাওয়ায় চাষিদের মধ্যে হতাশা বিরাজ করছে।

জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইউনানি মেডিকেল অফিসার ডা. আফ্রিন্দি রাজ্জাক বলেন, সূর্যমুখি ফুলের তেল ক্যান্সার প্রতিরোধে ভূমিকা রাখে। এছাড়াও এতে মাত্রারিক্ত ভিটামিন ই-থাকায় মেয়েদের বন্ধ্যাত্ব প্রতিরোধ ও ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে থাকে। অন্যদিকে দেশে ভোজ্যতেলের যে চাহিদা রয়েছে তার অধিকাংশই দেশের বাইরে থেকে আমদানি করতে হয়। এসব তেল কতটুকু নিরাপদ ও স্বাস্থ্যসম্মত তা নিয়েও ভোক্তাদের মাঝে রয়েছে প্রশ্ন। এসব বিবেচনা করে দেশে খাদ্য নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে এবং শরীরের রোগ প্রতিরোধ হয় এমন ফসল উৎপাদনে সবাইকে আগ্রহী হতে হবে।

উপজেলার মাধবখালী গ্রামের কৃষক রাজেদুল ইসলাম বরেন, আগে এলাকার কৃষকদের মধ্যে সূর্যমুখি চাষ সম্পর্কে তেমন কোন ধারণা ছিল না। এ বছর আমি ২২ কাঠা জমিতে পরীক্ষামূলকভাবে চাষ করেছি। প্রতি বিঘায় ৭-৮ মণ হারে ফলন হলেও স্থানীয় বাজারে বর্তমানে প্রতি মণ সূর্যমুখি সাড়ে তিন হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আমার ২২ কাঠায় সূর্যমুখি চাষে ১১ হাজার ৮০০ টাকা খরচ হয়েছে।

মন্তব্য
Loading...