জীবননগরে চাষির ড্রাগন বাগান কেটে সাবাড়

৩৩

জীবননগর প্রতিনিধি

চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার শহরের শাপলাকলিপাড়া বাসিন্দা বিএনপি নেতা তারা মিয়ার দেড় বিঘা জমির ড্রাগন গাছ শনিবার রাতের আঁধারে কেটে সাবাড় করেছে দুর্বৃত্তরা। এতে তার চার লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, শত্রুতার কারণে রাতের আঁধারে গাছগুলো কেটে দেয়া হয়েছে।

জীবননগর উপজেলার মিল-চাতাল ব্যবসায়ী বিএনপি নেতা তারা মিয়া বলেন, উপজেলার পিয়ারাতলা মাঠে অন্যের পাঁচ বিঘা জমি লিজ নিয়ে সেখানে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে ড্রাগন বাগান করেছি। বাগান নিরাপত্তার জন্য চারিদিকে কাঁটা তারের বেড়া দিয়ে ঘিরে দিয়েছি। আমি প্রতিদিনের মতো শনিবার বিকেলে বাগান পরিচর্যা শেষে বাড়ি চলে আসি। রোববার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে লোকমুখে জানতে পারি দুর্বৃত্তরা দেড় বিঘা জমির ড্রাগন গাছ কেটে সাবাড় করে দিয়েছে। আমি ঘটনা শুনে সেখানে গিয়ে ড্রাগন গাছগুলো কাটা দেখে রীতিমত হতবাক হয়ে পড়ি। দুর্বৃত্তরা ২০০টি ড্রাগন গাছ কেটে দিয়ে চার লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি করেছে। আমার ধারণা, এলাকায় আমার প্রতিপক্ষ আমাকে ক্ষতিগ্রস্ত করতেই এ জঘণ্য কাজ করেছে।

মনোহরপুর ইউনিয়ন পরিষদের সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড মেম্বার রিপন হোসেন বলেন, আমি ঘটনার কথা শুনেছি। তবে ঘটনাটি যারাই ঘটাক তারা ঠিক করেনি। মানুষের সাথে মানুষের শত্রুতা থাকতে পারে। তাই বলে গাছপালা কেটে দিতে হবে, এটা আবার কেমন কথা? এ ধরনের মানুষদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা উচিত।
জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম বলেন, ঘটনার ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত লিখিত কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

মন্তব্য
Loading...