ভাইস চেয়ারম্যান বিপুলের বিরুদ্ধে ৫০ কোটি টাকার মানহানি মামলা

0 ৭১

নিজস্ব প্রতিবেদক

যশোর সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুলের বিরুদ্ধে আদালত সমন জারি করেছেন। সোমবার দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী কেশবপুর, যশোর আদালতের বিচারক মঞ্জুরুল ইসলাম এ আদেশ দেন। এদিন কেশবপুর উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কাজী আযহারুল ইসলাম মানিক আদালতে ৫০ কোটি টাকার মানহানির একটি পিটিশন দাখিল করেন। পিটিশনে প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমান, যশোর অফিসের দুই সাংবাদিক মনিরুল ইসলাম ও মাসুদ আলমকে আসামি করা হলেও আদালত আমলে নেয়নি।
যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও যশোর-৬ (কেশবপুর) আসনের সংসদ সদস্য শাহীন চাকলাদারের বিরুদ্ধে ‘হত্যা পরিকল্পনার’ অভিযোগ সম্বলিত একটি সংবাদ প্রকাশের ঘটনায় কেশবপুর উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কাজী আযহারুল ইসলাম মানিক এই পিটিশন দাখিল করেন। পিটিশিনে তিনি দাবি করেন, গত ৭ সেপ্টেম্বর প্রথম আলোর ৬ নম্বর পৃষ্ঠায় সাংসদের বিরুদ্ধে ‘হত্যা পরিকল্পনার’ অভিযোগ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় তারা বিস্মিত, মর্মাহত এবং বিক্ষুব্ধ হয়েছেন। মামলার এক নম্বর আসামি আনোয়ার হোসেন বিপুল সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যমূলকভাবে যশোর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সাংবাদিক সম্মেলন করে যশোর-৬ আসনের সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদারের বিরুদ্ধে হত্যার পরিকল্পনার অভিযোগ উত্থাপন করেন। সেখানে বলা হয়, তিনি কাঁঠালতলাস্থ ব্যক্তিগত কার্যালয়ে বসে তাকে (বিপুল) হত্যার পরিকল্পনাসহ তার (এমপি) নির্দেশে ক্যাডাররা বিপুলের নামে অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে।
পিটিশনে আরও বলা হয়, এইসব ‘মিথ্যা ও উদ্দেশ্যমূলক বক্তব্য উপস্থাপনের মাধ্যমে শাহীন চাকলাদারের মতো একজন জনপ্রিয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, সৎ, যোগ্য, ত্যাগী নেতার সুনাম ও সুখ্যাতি বিনষ্ট করেছেন আসামিরা পরস্পর যোগসাজস করে। একারণে সংসদ সদস্য ও বাদীর সম্মানহানি হওয়ায় ৫০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে তিনি এই মামলা করেছেন। এই মামলায় আসামি করা হয় মোট চারজনকে।
বাদীপক্ষের আইনজীবী রফিকুল ইসলাম পিটু জানান, বিজ্ঞ আদালত আনোয়ার হোসেন বিপুলের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন। বাকি তিন আসামিকে আমলে নেননি। আদালতের পরবর্তী ধার্যদিন ৭ অক্টোবর ।
প্রসঙ্গত, গত ৬ সেপ্টেম্বর দুপুরে যশোর প্রেসক্লাবে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বিপুল সংবাদ সম্মেলন করেন। সেই সংবাদ সম্মেলনে তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য শাহীন চাকলাদারের বিরুদ্ধে ‘হত্যা পরিকল্পনার’ অভিযোগ আনেন। সংবাদ সম্মেলনের এই প্রতিবেদন দেশের বিভিন্ন নিউজপোর্টাল ও স্থানীয়সহ জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত হয়।

মন্তব্য
Loading...