বেনাপোলে নেশার টাকা না পেয়ে ভাইকে খুন

ভারতে পালানোকালে অস্ত্রসহ অভিযুক্ত আটক

0 ৩৩৮

বেনাপোল প্রতিনিধি :

নেশার টাকা না দেয়ায় বড়ভাই রাসেল হোসেনকে (৩৭) গুলি করে হত্যা করেছে তার আপন ছোটভাই আমজাদ হোসেন (৩২)। বুধবার সকাল ১০টার দিকে বেনাপোল পোর্ট থানার কাগজপকুর গ্রামের তাদের নিজ বাড়িতে এ ঘৃণিত ঘটনা ঘটে। ঘটনা ঘটিয়েই ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের হাতে পিস্তল, গুলি ও চাকুসহ ধরা পড়ে খুনি।
যশোর পুুলিশের মুখপাত্র অতিবিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম প্রতিদিনের কথার কাছে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
নিহত রাসেল হোসেন ও হত্যাকারী আমজাদ হোসেন কাগজপুকর গ্রামের ইদ্রিস আলী ইদুর ছেলে।
নিহতের চাচা আব্দুল কারিম বলেন, মঙ্গলবার রাতে আমজাদ নেশার জন্যে তার ভাই রাসেলে কাছে ২০ হাজার টাকা দাবি করেন। এ নিয়ে দুই ভাইয়ের কথা কাটাকাটি হয়। বুধবার সকাল ১০টার দিকে আবার তিনি বড়ভাইয়ের কাছে টাকা দাবি করেন। রাসেল টাকা দিতে অস্বীকার করলে আমজাদ তার গলায় পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করে হত্যা করে। রাসেলকে বুরুজবাগান হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।
স্থানীয়রা জানান, বেনাপোল-শার্শার কুখ্যাত সন্ত্রাসী একাধিক মাদক ও হত্যা মামলার আসামি নিজের বোমায় নিজে নিহত আমিরুলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড এই আমজাদ হোসেন। আমিরুল নিহত হওয়ার পর থেকে তিনি কাগজপুকুরসহ শার্শা এলাকায় ছিনতাইসহ নানা ধরনের অপরাধমূলক কর্মকা-ের সাথে জড়িয়ে পড়েন। নিহত রাসেল হোসেন বেনাপোল বাজারের ডাবলু মার্কেটের একজন কসমেটিকস ব্যবসায়ী।
বেনাপোল বিজিবি ক্যাম্পের সুবেদার আব্দুল ওহাব বলেন, স্থানীয়দের সহযোগিতায় আমরা ওই যুবককে আমরা আটক করি। স্থানীয়রা আমাদের বলেন, তিনি একজনকে হত্যা করে পালিয়ে যাচ্ছিলেন। তাকে আটক করে নাম জানতে চাইলে তিনি বলেন, তার নাম আলী হোসেন। এ সময় তার কাছে একটি ছোট চাকু পাওয়া যায়। আমরা নিশ্চিত হতে না পেরে ওই যুবককে ছেড়ে দেয়ার পর পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।
এ ঘটনার পর নিহতের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। হাজার হাজার মানুষ ওই বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছেন।
বেনাপোল পোর্ট থানার ডিউটি অফিসার এএসআই রোকনুজ্জামান বলেন, আমজাদ ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় ওসি মামুন খানের নেতৃত্বে তাকে সীমান্তের সাদিপুরের ইছামতি নদী থেকে আটক করা হয়।
বেনাপোল পোর্ট থানার ওসি মামুন খান আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আসামিকে আটক করে থানা হাজতে রাখা হয়। তার নিকট থেকে একটি পিস্তল, ৩ রাউন্ড গুলি ও একটি চাকু উদ্ধার করা হয়েছে।

 

মন্তব্য
Loading...