আধিপত্য বিস্তারের জের লোহাগড়ায় কুপিয়ে মাতব্বরের হাত-পা বিচ্ছিন্ন করে দিল প্রতিপক্ষ

0 ৭২

লোহাগড়া প্রতিনিধি

এলাকার আধিপত্য বিস্তার করাকে কেন্দ্র করে নড়াইলের লোহাগড়া পৌরসভার খলিশাখালি গ্রামে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মাতুব্বর জলিল মোল্যার (৫০) হাত-পা বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে প্রতিপক্ষরা। এলাকাবাসী আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় ওই এলাকা চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, লোহাগড়া পৌরসভার খলিশাখালি গ্রামে আধিপত্য বিস্তার করাকে কেন্দ্র করে জলিল মোল্যা সমর্থিত লোকজনের সঙ্গে একই গ্রামের জহুর কাজি সমর্থিত লোকজনদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে সোমবার সকালে মাতুব্বর জলিল মোল্যা বাড়ি থেকে বের হয়ে মাঠে যাওয়ার পথে মশিয়ারের বাড়ির পাশে পৌছালে পূর্ব থেকে ওত পেতে থাকা জহুর কাজি সমর্থিত মশিয়ার, লাভলু, সোহেল, ফয়সাল তালুকদার, আমিনুর, সজিব, ইমন, আলম, আরমানসহ একদল দুর্বৃত্ত দেশীয় অস্ত্র ছ্যানদা, রামদা, চাপাতি নিয়ে জলিলকে এলোপাথাড়িভাবে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় কুপিয়ে শরীর থেকে ডান হাত ও বাম পা কেটে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে প্রথমে লোহাগড়া হাসপাতালে নিয়ে আসে। পরে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে অবস্থার অবনতি হলে তাকে যশোরের একটি বেসরকারি পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
চিকিৎসকের মাধ্যমে স্বজনরা জানিয়েছে, বর্তমানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। এ ঘটনায় লোহাগড়া থানা পুলিশ, সিআইডি ও ডিবি পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ আশিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা শিকার করে বলেন, জিজ্ঞাবাদের জন্য ওই গ্রামের চার মহিলাকে আটক করা হয়েছে।

মন্তব্য
Loading...