নাতিকে নির্যাতন : উদ্ধার করতে গিয়ে দাদা খুন

0 ৭৫

মাগুরা প্রতিনিধি

পাটকাঠি নিয়ে খেলা করছিল ৫ বছরের শিশু আব্দুল্লাহ। বুঝতে না পারায় কাঠির আঘাত লাগে প্রতিবেশী সাগর মোল্যার গায়ে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে চেপে ধরে শিশুটির গলা। আর তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে খুন হতে হলো দাদা বাদশা মোল্যাকে (৬০)। ঘটনাটি ঘটেছে মাগুরা সদর উপজেলার পুখরিয়া গ্রামে।
এলাকাবাসী জানায়, রোববার সকাল ১০টার দিকে পুখরিয়া পশ্চিমপাড়ার শিমুল শিকদারের ৫ বছর বয়সি শিশু আবদুল্লাহ পাটকাঠি নিয়ে খেলা করছিল। এ সময় শিশুটির হাতে থাকা পাটকাঠির আঘাত লাগে প্রতিবেশী সাগর মোল্যার গায়ে। এতে রাগান্বিত হয়ে সাগর শিশুটির গলা টিপে ধরে নির্যাতন চালায়। এ সময় শিশুটির আর্তনাদে বাদশা শিকদার ছুটে এসে সাগরকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। এতে ক্ষুব্ধ সাগর ঘর থেকে ধারালো দা বের করে বাদশা শিকদারের উপর হামলা চালিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এ সময় বাদশা শিকদারের স্ত্রী জুলেখা খাতুন, ছেলে শিমুলের স্ত্রী রিনা এবং ভাইয়ের স্ত্রী জোসনা বেগম তাকে রক্ষা করতে গেলে তাদেরও কুপিয়ে জখম করে। তাদের মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বাদশা শিকদারের মৃত্যু হয়। নিহত বাদশা মোল্যা পুখরিয়া গ্রামের আকবার শিকদারের ছেলে।
এ বিষয়ে মাগুরা সদর থানার ওসি (তদন্ত) সাইদুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পাওয়া গেলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য
Loading...