বেনাপোলে নেই হেক্সিসল-হ্যান্ডওয়াশ-হ্যান্ড স্যানিটাইজার

0 ১৯৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ এর প্রভাব ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের প্রায় অন্তত ১৮৬টি দেশে।  সম্প্রতি ভাইরাসটি জায়গা করে নিয়েছে বাংলাদেশেও। এ  পর্যন্ত নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯ জন। সারাদেশে হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন কয়েক হাজার মানুষ। মহামারি এ ভাইরাস রুখতে বাংলাদেশের সকল জেলা-উপজেলার মতো বেনাপোলেও চলছে সচেতনতামূলক প্রচার-প্রচারণা। প্রশাসন, মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তিগতভাবে নেওয়া হচ্ছে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ। সচেতনতার প্রথম স্তরেই আছে দু’হাত সবসময় যতটা সম্ভব জীবাণুমুক্ত রাখা।

তবে শার্শা উপজেলার ঘনবসতিপূর্ণ বেনাপোলের পাশ্ববর্তি পুটখালী, বাহাদুরপুর, লক্ষণপুর, গোগাসহ কয়েকটি ইউনিয়নের মানুষের বড় বাজার বেনাপোল। এই বাজারে কোন ফার্মেসি ঔষধের দোকান বিপনিবিতান গুলোতে করোনাভাইরাস থেকে মুক্ত থাকার জন্য নেই কোনো হেক্সিসল,  হ্যান্ডওয়াশ, হ্যান্ড গ্লাস, লিকুইড সেভলন এবং ডেটল, এন্টিভাইরাস স্প্রে মেশিন।

প্রয়োজনে ছুটছে এ দোকান থেকে ও দোকানে কোথাও মিলছে কোন পণ্য।  অনিরাপদ অবস্থান মানুষের মনে শঙ্কার স্মৃষ্টি হচ্ছে অতিদ্রুত প্রযোজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনে সংশ্লিষ্ট মহলের দৃষ্টি দেওয়া দরকার।

এব্যাপারে বেনাপোল বাজারের ব্যবসায়ী মিলন বলেন হঠাৎ করে করোনা ভাইরাস আক্রান্তের খবরে বাজার থেকে মানুষজন একাধিক পন্য কিনে নেওয়ার কারনে বর্তমান সংকটময় পরিস্থিতি, হাজী ফার্মেসি র শাহিন বলেন এই সব জিবানুনাশক সাধারন সময়ে বিক্রি তেমন হয়না বর্তমানে কোম্পানির প্রতিনিধি রা সাপ্লাই করতে পারছে না সেই কারনে সংকট চলছে।

মন্তব্য
Loading...